সোমবার, ৩০ জানুয়ারী ২০২৩

হাতিয়া চ্যানেলে ডুবল পণ্যবাহী জাহাজ

হাতিয়া চ্যানেলে ডুবল পণ্যবাহী জাহাজ

হাতিয়া চ্যানেলে ডুবল পণ্যবাহী জাহাজ

মঙ্গলবার, ১৩ জুলাই, ২০২১

 

 

১৯৭ বার পড়া হয়েছে

প্রিয় পাঠকঃনোয়াখালীর হাতিয়ার ভাসানচরের কাছে বঙ্গোপসাগরে ডুবে থাকা একটি জাহাজের সঙ্গে ধাক্কা লেগে এমভি হ্যাং গ্যাং নামে একটি পণ্যবাহী জাহাজ ডুবে যাচ্ছে। তবে জাহাজে থাকা ১৩ জন নাবিক নিরাপদে আরেকটি জাহাজে উঠতে পেরেছেন।মঙ্গলবার (১৩ জুলাই) এই দুর্ঘটনা ঘটে।
বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহন কর্তৃপক্ষের উপপরিচালক মো. সেলিম জানান, লাইটার জাহাজ এমভি হ্যাং গ্যাং চট্টগ্রাম বন্দর থেকে গ্যাসের পাইপ নিয়ে মাওয়ার দিকে যাচ্ছিল। ভাসানচর থেকে ১০ নটিক্যাল মাইল দক্ষিণে জাহাজটি একটি ডুবে যাওয়া জাহাজের সঙ্গে ধাক্কা খায়। এতে জাহাজটি ডুবে যাচ্ছে। মঙ্গলবার বিকেল সাড়ে তিনটা পর্যন্ত জাহাজটি পুরোপুরি ডুবেনি। জাহাজটি উদ্ধারে দ্রুত ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।

গত শনিবার (১০ এপ্রিল) এমভি ফুলতলা নামে একটি জাহাজ ডুবে যায়। এরপর বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌ পরিবহন কর্তৃপক্ষ ওই স্থানে লাল বয়া স্থাপন করে। এমভি হ্যাং গ্যাং নামের জাহাজ স্টিয়ারিং ফেল করায় নিয়ন্ত্রণ রাখতে না পারায় ডুবে যাওয়া জাহাজ ফুলতলার সঙ্গে ধাক্কা খায়।

বাংলাদেশ লাইটার শ্রমিক ইউনিয়নের সহ-সভাপতি নবী আলম বলেন, গত ৪ জুলাই ভাসানচর নতুন চ্যানেলের কাছে ডুবে যায় ‘এমভি একরাম জুনায়েদ-২’ নামের একটি লাইটার জাহাজ। এরপর গত ১০ জুলাই ডুবে থাকা জাহাজের সাথে ধাক্কা খেয়ে ফুলতলা-১ নামে আরও একটি লাইটার জাহাজ ডুবে যায়। বারবার দুর্ঘটনা ঘটায় আমরা বিআইডব্লিউটিএ’কে ওই চ্যানেলগুলোতে মার্কিং বয়া স্থাপন করতে বলেছিলাম। আজ সকালে চট্টগ্রাম থেকে মাওয়া যাওয়ার সময় নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ডুবন্ত একটি লাইটার জাহাজের সঙ্গে ধাক্কা লেগে এমভি হ্যাং গ্যাং-১ নামে পণ্যবাহী জাহাজ ডুবে গেছে।

ট্যাগ :

আরো পড়ুন