মঙ্গলবার, ৩১ জানুয়ারী ২০২৩

বিশ্বকাপে মেসির যত রেকর্ড

বিশ্বকাপে মেসির যত রেকর্ড

বিশ্বকাপে মেসির যত রেকর্ড

সোমবার, ১৯ ডিসেম্বর, ২০২২

 

 

২২ বার পড়া হয়েছে

প্রিয় পাঠকঃপেলে ফেরেননি খালি হাতে। ম্যারাডোনাও ফেরেননি খালি হাতে। তাহলে মেসি কেন ফিরবেন খালি হাতে? অবশেষে দীর্ঘ প্রতীক্ষার পর নিজের পঞ্চম বিশ্বকাপে এসে মেসি পেয়েছেন বিশ্বকাপের ছোঁয়া। আর্জেন্টিনা ৩৬ বছরের খরা কাটাল।

মেসি কেন ফুটবলের খুঁদে জাদুকর, কেন সর্বকালের সেরা ফুটবলদের একজন, সেটা তিনি তার শেষ বিশ্বকাপে এসে আরেকবার প্রমাণ করেছেন। গোটা আসর তিনি মুগ্ধতা ছড়ানো নৈপুন্য দেখিয়ে সবাইকে মোহবিষ্ট করে রেখেছিলেন। প্রথম ম্যাচ থেকে ফাইনাল—এই সাতটি ম্যাচে একমাত্র গ্রুপ পর্বে পোল্যান্ডের বিপক্ষে ম্যাচেই তিনি কোনো গোল করতে পারেননি। তিনি শুধু নিজে গোল করেননি, অন্যকে দিয়েও গোল করিয়েছেন। যার সফল সমাপ্তি হয়েছে অধরা হয়ে থাকা শিরোপা জয়ের মাধ্যমে। তিনি জিতেছেন গোল্ডেন বলও। অল্পের জন্য জিততে পারেননি গোল্ডেন বুট।

কাতার বিশ্বকাপে সাফল্য এসে গড়াগড়ি খাওয়া মেসি ফাইনাল খেলার মাধ্যমে কিন্তু গড়েছেন একটির পর একটি রেকর্ড।

এক নজরে মেসির সেই সব কীর্তিগুলো—

*ফাইনালে মেসি খেলেছেন ১২০ মিনিট। এই ১২০ মিনিট খেলে বিশ্বকাপে তার মোট খেলার সময় ২,৩১৪ মিনিট। পেছনে ফেলে দিয়েছেন ইতালির পাওলো মালদিনিকে। তার মোট খেলার সময় ছিল ২,২১৭ মিনিট।

*বিশ্বকাপের ফাইনাল ম্যাচ ছিল বেশি মেসির ২৬তম। ম্যাচ খেলার দিক দিয়ে এটিও নতুন একটি রেকর্ড। আগে সবচেয়ে বেশি ম্যাচ খেলার রেকর্ড ছিল জার্মানির লোথার ম্যাথিউসের। তিনি খেলেছিলেন ২৫টি ম্যাচ।

*অধিনায়ক হিসেবেও মেসি করেছেন নতুন রেকর্ড। তিনি খেলেছেন বিশ্বকাপের ১৯টি ম্যাচ। ১৭ ম্যাচ খেলে আগের রেকর্ড ছিল মেক্সিকোর রাফা মার্কেসের ১৭টি।

*বিশ্বকাপে ম্যাচ সেরার পুরস্কার দেওয়া শুরু হয়েছে ২০০২ সালের আসর থাকে। মেসি এখন পর্যন্ত সবচেয়ে বেশি ১১ বার হয়েছেন ম্যাচ সেরা। কাতার বিশ্বকাপে তিনি হয়েছেন পাঁচবার ম্যাচ সেরা।

*বিশ্বকাপ ফুটবলে প্রথম খেলোয়াড় হিসেবে চারটি ধাপেই গোল করার প্রথম নজির গড়েছেন মেসি। গ্রুপ পর্বে গোল করার পর শেষ ১৬, কোয়ার্টার ফাইনাল, সেমিফাইনাল এবং ফাইনালে গোল করেন মেসি।

*মেসি নিজে গোল করেছেন অন্যকে দিয়ে করিয়েছেন-এমন নজির বিশ্বকাপে ২১ গোলে আছে তার। এটিও নতুন রেকর্ড। আগের রেকর্ড ছিল ১৯ গোলের সম্পৃক্ততায়। যেখানে ছিলেন তিনজন। জার্মানির গার্ড মুলার ও মিরোস্লাভ ক্লোসা এবং ব্রাজিলের রোনালদো।

*কাতার বিশ্বকাপে মেসি গোল করেছেন সাতটি। ফাইনালে দুই গোল করার আগেই তিনি একে একে পেছনে ফেলেছিলেন ম্যারাডোনার করা আট গোল ও বাতিস্তুতার ১০ গোল। মেসির গোল ১৩টি। ১৬ গোল করে সবার উপরে আছেন জার্মানির মিরোস্লাভ ক্লোসা। ১৫ গোল করে দ্বিতীয় স্থানে আছেন ব্রাজিলের রোনালদো। জার্মানির গার্ড মুলার আছেন ১৪ গোল করে তৃতীয় স্থানে। মেসির সমান ১৩ গোল আছে ফ্রান্সের জাস্ট ফন্টেইনের।

*মেসি খেলেছেন পাঁচটি বিশ্বকাপ। এই পাঁচ বিশ্বকাপে তিনি গোল করার সহযোগিতার দিক দিয়েও কীর্তি গড়েছেন। আগের কীর্তি ছিল তিন আসরে অ্যাসিস্ট করার। এই কীর্তি ছিল ব্রাজিলের কিংবদন্তি পেলে, আর্জেন্টিনার কিংবদন্তি ম্যারাডোনা, ইংল্যান্ডের কিংবদন্তি বেকহ্যাম ও পোল্যান্ডের জেগোস রাতভোর।

ট্যাগ :

আরো পড়ুন