সোমবার, ৩০ জানুয়ারী ২০২৩

পুঁজিবাজারের লেনদেন এক ঘণ্টা বাড়ল

পুঁজিবাজারের লেনদেন এক ঘণ্টা বাড়ল

পুঁজিবাজারের লেনদেন এক ঘণ্টা বাড়ল

বুধবার, ৫ মে, ২০২১

 

 

২৬৯ বার পড়া হয়েছে

প্রিয় পাঠকঃব্যাংকিং কার্যক্রম এক ঘণ্টা বাড়ানোয় পুঁজিবাজারেও লেনদেন বৃহস্পতিবার থেকে এক ঘণ্টা বাড়ানোর সিদ্ধান্ত হয়েছে।বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) একাধিক সূত্র এ তথ্য নিশ্চিত করেছে।
বুধবার বাংলাদেশ ব্যাংক ব্যাংকিং কার্যক্রম আগের সময়ের চেয়ে এক ঘণ্টা বৃদ্ধি করে নির্দেশনা জারি করে। বলা হয়, করোনা পরিস্থিতিতে সরকারের ঘোষিত লকডাউনে ব্যাংকের কার্যক্রম সকাল ১০টা থেকে দুপুর ২টা পর্যন্ত চলবে।
এর আগে লকডাউনে ব্যাংকের লেনদেন পরিচালিত হয়েছে বেলা ১০টা থেকে ১টা পর্যন্ত।
পুঁজিবাজারের লেনদেনও ব্যাংকের লেনদেনের সঙ্গে সমন্বয় করে পরিচালিত হবে এমন সিদ্ধান্ত ছিল বিএসইসির। তাই ব্যাংকের কার্যক্রম এক ঘণ্টা বৃদ্ধি পাওয়ায় পুঁজিবাজারের লেনদেনও এক ঘণ্টা বাড়ানো হয়েছে।
করোনা পরিস্থিতিতে গত ৫ এপ্রিল ঘোষিত সরকারের প্রথম লকডাউন ঘোষণার পর পুঁজিবাজারের লেনদেন চলে দুপুর ১২টা পর্যন্ত। ১২ এপ্রিল পর্যন্ত এভাবেই চলেছে লেনদেন। পরবর্তীতে সরকার ১৪ এপ্রিল থেকে আবারও লকডাউন ঘোষণা করলে তখন ব্যাংকের লেনদেনের সঙ্গে সমন্বয় করে পুঁজিবাজারের লেনদেন সময়সীমা বাড়ানো হয় আধা ঘণ্টা, দুপুর সাড়ে ১২টা পর্যন্ত।
সর্বশেষ ৬ এপ্রিল থেকে সে সময়সীমা বৃদ্ধি করে দুপুর দেড়টা পর্যন্ত করা হয়।
লেনদেন সময় সীমা সম্পর্কে বিএসইসি কমিশনার শেখ শামসুদ্দিন আহমেদ জানান, পুঁজিবাজারের লেনদেন শুরু ও শেষ হওয়ার পর কিছু কার্যক্রম থাকে। তাই ব্যাংকের সঙ্গে সরাসরি সমন্বয় করে লেনদেন পরিচালনা করা সম্ভব নয়। এজন্য ব্যাংকের কার্যক্রম শেষ হওয়ার আধা ঘণ্টা আগে পুঁজিবাজারের লেনদেন শেষ করতে হয়।
বিএসইসি নির্বাহী পরিচালক ও মুখপাত্র রেজাউল করিম বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, ৬ মে থেকে ১৬ মে পর্যন্ত ব্যাংকিং সময়সূচী সকাল ১০টা থেকে দুপুর ২টা পর্যন্ত নির্ধারণ করার পরিপ্রেক্ষিতে পুঁজিবাজারের লেনদেন সকাল ১০টা থেকে দুপুর দেড়টা পর্যন্ত চলবে।
উল্লেখিত সময়ে লেনদেন চলাকালে প্রি-ওপেনিং সেশন পৌনে ১০টা থেকে ১০ পর্যন্ত এবং পোস্ট ক্লোজিং সেশন দেড়টা থেকে পৌনে দুইটা পর্যন্ত চালু থাকবে।

ট্যাগ :

আরো পড়ুন