সোমবার, ৩০ জানুয়ারী ২০২৩

পি কে হালদারের সহযোগী গ্রেপ্তার

পি কে হালদারের সহযোগী গ্রেপ্তার

পি কে হালদারের সহযোগী গ্রেপ্তার

সোমবার, ৪ জানুয়ারী, ২০২১

 

 

২৯৬ বার পড়া হয়েছে

প্রিয় পাঠক:সাড়ে তিনঘন্টা জিজ্ঞাসাবাদ শেষে গ্রেপ্তার করা হয়েছে পলাতক পি কে হালদারের মামাতো ভাই শঙ্খ বেপারীকে। দুর্নীতি দমন কমিশন, দুদক বলছে গুরুত্বপূর্ণ তথ্য পাওয়ায় তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। তিনি হালদারের লুটপাটের সহযোগী ছিলেন। জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তাকে তিন দিনের রিমান্ড নেয়া হয়েছে।

প্রশানন্ত কুমার, যার পরিচিতি পিকে হালদার নামে।বিভিন্ন আর্থিক প্রতিষ্ঠান থেকে ঋণের নামে পাঁচ হাজার কোটি টাকা আত্মসাৎ করে এখন পলাতক।প্রায় ৩শ’ কোটি টাকার অজ্ঞাত সম্পদের তথ্য তুলে ধরে তার বিরুদ্ধে মামলা করে দুদক। যার তদন্ত এখনো চলছে। পাশাপাশি অর্থ আত্মসাৎ ও পাচারের অভিযোগেরও অনুসন্ধান করছে সংস্থাটি।

সবশেষ তাকে দেশে আনতে ইন্টারপোলেও চিঠি দেয় দুদক। তদন্ত সংশ্লিষ্টরা বলছেন, দেশে তার টাকা ও সম্পদের ভাগিদার কারা তা এখন খতিয়ে দেখা হচ্ছে।
এসব তথ্য জানতেই সোমবার পিকে হালদারের মামাতো ভাই শঙ্খ বেপারীকে টানা সাড়ে তিনঘন্টা জিজ্ঞাসাবাদ করে দুদকের উপ-পরিচালক সালাউদ্দিনের নেতৃত্বে একটি টিম।এসময় জানা যায়, পিকে হালদারের সহযোগী ছিলেন শঙ্খ বেপারী। তার নামে ধানমন্ডিতে প্রায় তিন কোটি টাকা দামের ফ্ল্যাটটিও কেনা হয় পিকে হালদারের লুটপাটের টাকায়। এছাড়া শঙ্খ বেপারীকে মুন এন্টারপ্রাইজ নামে একটি প্রতিষ্ঠানের মালিক দেখিয়ে ইন্টারন্যাশনাল লিজিং থেকে পিকে হালদার প্রায় একশো কোটি টাকার ঋণ পাওয়ার ব্যবস্থা করেন। পরে এ টাকা পিকে হালদার, শঙ্খ বেপারী ভাগ-বাটোয়ারা করেন। জিজ্ঞাসাবাদে এসব তথ্য পাওয়ায় দুদক শঙ্খ বেপারীকে গ্রেপ্তার করে।

দুর্নীতি দমন কমিশনের সচিব ড. আনোয়ার হোসেন হাওলাদার বলেন, “শঙ্খ ব্যাপারী পিকে হালদারের একজন সহযোগী। তার উপার্জিত বা অবৈধভাবে উপার্জিত অর্থ তার মাধ্যমেই বিভিন্ন জায়গায় গিয়েছে। এ কারণে তাকে গ্রেপ্তার করে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে।”

ট্যাগ :

আরো পড়ুন