মঙ্গলবার, ০৫ ডিসেম্বর ২০২৩

নীরব নিভৃতচারী গবেষক মুহাম্মদ শামসুল হক ও বাংলা একাডেমী পুরষ্কার

নীরব নিভৃতচারী গবেষক মুহাম্মদ শামসুল হক ও বাংলা একাডেমী পুরষ্কার

নীরব নিভৃতচারী গবেষক মুহাম্মদ শামসুল হক ও বাংলা একাডেমী পুরষ্কার

বুধবার, ২৫ জানুয়ারী, ২০২৩

 

 

৫০১ বার পড়া হয়েছে

আশরাফ আহমেদঃগবেষণা কাজটি শুধু জটিলই নয় সময় সাপেক্ষ।নিরলস একাগ্রতা, একনিষ্ট না হলে কাজটি করা সত্যিই দুরুহ।আজকালকার দিনে সস্তা জনপ্রিয়তার দৌঁড়ে গবেষণা ধর্মী কাজ থেকে অনেকে দূরে। মুক্তিযুদ্ধের প্রেক্ষাপটে তো তা আরো বেশী প্রকট। কিন্তু সেই দুরুহ কাজটি নীরবে নিভৃতে করে চলেছেন মুহাম্মদ শামসুল হক।যার একাধিক পরিচয়।মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক গবেষক, লেখক, সাংবাদিক, সংগঠন কর্মী।অবশেষে তার কাজের স্বীকৃতি পেলেন মুহাম্মদ শামসুল হক।মুক্তিযুদ্ধ ভিত্তিক গবেষণা ক্যাটাগরিতে তিনি বাংলা একাডিমে পুরস্কার -২০২২ পেলেন।

দেশ, সমাজ, সভ্যতা ও সংস্কৃতির প্রকৃত চিত্র ফুটে ওঠে তার ইতিহাসের পাতায়। কিন্তু সেই ইতিহাসের উপাদান সংগ্রহ, সংরক্ষণ ও প্রকাশ করা অত্যন্ত কষ্টসাধ্য এবং আর্থিকভাবে অলাভজনক। এরকম একটি কঠিন কাজ করে চলেছেন গবেষক-সাংবাদিক মুহাম্মদ শামসুল হক। ইতিহাসের প্রাথমিক তথ্যগুলো তুলে ধরার জন্য তাঁর ‘ইতিহাসের খসড়া’ নামে ইতিহাস-ঐতিহ্য ও সংস্কৃতিবিষয়ক সাময়িকীর প্রকাশ সময়োপযোগী।

মুহাম্মদ শামসুল হক পরিশ্রমী গবেষক।মাঠ পর্যায়ে খেটে খুটে কাজ করতে তিনি অভ্যস্ত। তাঁর গবেষণার বিষয় ইতিহাস, ঐতিহ্য, ভাষা আন্দোলন, মুক্তিযুদ্ধ ও বঙ্গবন্ধু। তাঁর মূল লক্ষ্য ইতিহাস-ঐতিহ্য, সংস্কৃতি ও মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক গবেষণা, লেখালেখি ও গ্রন্থ প্রকাশের মাধ্যমে নতুন প্রজন্মকে ইতিহাস সচেতন করার কাজে অবদান রাখা। মূলত ইতিহাস ও ঐতিহ্যের প্রতি দায়বোধ থেকে তাঁর কর্মে ও লেখায় প্রাধান্য পেয়েছে ইতিহাস-আশ্রয়ী বিষয়। সেই ইতিহাসেরই অনুষঙ্গ হিসেবে তাঁর প্রিয় বিষয় মুক্তিযুদ্ধ। প্রসঙ্গত ৭১ এর মহান মুক্তিযুদ্ধ চলাকালীন ১৬ এপ্রিল পটিয়ায় পাকিস্তানি বাহিনীর বোমা হামলায় মুহাম্মদ শামসুল হকের মেঝো ভাই আমিনুল হক শহীদ হন।

মুহাম্মদ শামসুল হক ১৯৭৭ খ্রিষ্টাব্দে অধুনালুপ্ত দৈনিক জমানার মাধ্যমে সাংবাদিকতার শুরু করেন। পর্যায়ক্রমে দৈনিক স্বাধীনতা, নয়াবাংলা, আল আমিন, সাপ্তাহিক চট্টলা, ভোরের কাগজ, প্রথম আলোতে সাংবাদিকতা করেন। বর্তমানে ইতিহাসের খসড়া নামে ইতিহাস ঐতিহ্য, সংস্কৃতি ও মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক গবেষণামূলক সাময়িকীর সম্পাদক ও প্রকাশক।

ট্যাগ :

আরো পড়ুন